মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
পাতা

উপজেলা প্রশাসনের পটভূমি

হাওর, বাওর, বিল-ঝিল, ফুলেশ্বরী, নরসুন্দা, সূতী, বেতাই ও বর্নী নদী, বিধৌত আর জারী-সারি, ভাটিয়ালী, বাউলাগান ও লোক সাহিত্যের সমৃদ্ধ একটি সু-প্রচীন জনপদের নাম তাড়াইল। সুজলা-সুফলা শস্য-শ্যামলা প্রকৃতির অপরূপ সৌন্দর্যের লীলাভূমি তাড়াইলের আনাচে-কানাচে ছড়িয়ে, ছিটিয়ে রয়েছে অসংখ্য পুরাকৃতির ঐতিহাসিক নিদর্শন এবং বঙ্গালীজাতির হাজার বছরের লোকায়ত ঐতিহ্য।

তাড়াইল উপজেলা ২৪ডিগ্রী ৩১মিনিট হতে ২৪ডিগ্রী ৩৯মিনিট উত্তর অক্ষাংশে অবস্থিত। এ উপজেলার উত্তরে নেত্রকোণা জেলার কেন্দুয়া ও মদন। উপজেলার পূর্বে ইটনা, দক্ষিণে করিমগঞ্জ ও কিশোরগঞ্জ সদর, পশ্চিমে ময়মনসিংহ জেলার নান্দাইল উপজেলা। ইটনা উপজেলার বাদলা নামক স্থানে পুলিশ ফাড়ি নির্মিত হয় যা ১৯০৯সালে স্থানান্তরিত হয়ে তাড়াইল থানায় আত্মপ্রকাশ ঘটে।

১৯৮৩সালে এটি মান উন্নীত থানা হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে তৎকালীন ও ত্রাণ ও পুর্নবাসন মন্ত্রণালয় অতিরিক্তসচিব (ভারপ্রাপ্ত) জনাব এ ছালাম ২রা জুলাই, ১৯৮৩ বেলা ১১.০০ এ উপজেলা শুভ উদ্ধোধন করেন। জনাব কেএম. আখতার হামিদ প্রথম থানা নির্বাহী অফিসার হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন।

তাড়াইলের নামকরণের বিষয়ে জানা যায়, তাড়াইল থানাটি তালজাঙ্গা জমিদার রাজনারায়ণ চৌধুরীর জমিদারের অংশ। যা তিনি জনগণের সু-বিধার্থে দান করেন। তার স্ত্রী তারামন দেবীর নামের তারা এবং ক্ষেতের আইল থেকে আইল কথাটি যুক্ত করে তারা+আইল=তাড়াইল নামকরণ হয়েছে বলে মুরুবিবরা বলেন।